তেঁ

তেঁ

সর্বনাম

  • – (প্রাচীন বাংলা) তারা, তাহারা (‘তেঁ সহ্মে চোরায়ল’: শ্রীকৃষ্ণ কীর্তন)।

উৎস

  • – সংস্কৃত তে।

তেঁ

অব্যয়

  • – (প্রাচীন বাংলা) তাই, সেইজন্য, তজ্জন্য (‘অনেকের পতি তেঁই পতি মোর বাম’: ভারত চন্দ্র রায়গুণাকর)।

উৎস

  • – সংস্কৃত তেন।

সমার্থক

  • – তেঁ, তেঁই, তেঁউ, তেঁএ৷

তে

তে

বিশেষণ

  • – (প্রাচীন বাংলা) সেই (তেকারণ)।

উৎস

  • – সংস্কৃত তদ্।

তে

বিভক্তি

  1. – কর্তৃত্বসূচক (পাখিতে খায়, তোমাতে আমাতে যাব);
  2. – দ্বারা বা দিয়ে অর্থবাচক (ছুরিতে কেটেছে);
  3. – হইতে বা থেকে অর্থবাচক (দয়াতে বঞ্চিত);
  4. – ক্রিয়া-বিশেষণসূচক (দ্রুতগতিতে হাঁটা)।

তে

বিশেষণ

  • – তিন, ত্রি (তেকোনা, তেমাথা, তেরাত্তির)।

উৎস

  • – সংস্কৃত ত্রি।

তেঁই

তেঁই

অব্যয়

  • – (প্রাচীন বাংলা) তাই, সেইজন্য, তজ্জন্য (‘অনেকের পতি তেঁই পতি মোর বাম’: ভারত চন্দ্র রায়গুণাকর)।

উৎস

  • – সংস্কৃত তেন।

সমার্থক

  • – তেঁ, তেঁই, তেঁউ, তেঁএ৷

তেঁউ

তেঁউ

অব্যয়

  • – (প্রাচীন বাংলা) তাই, সেইজন্য, তজ্জন্য (‘অনেকের পতি তেঁই পতি মোর বাম’: ভারত চন্দ্র রায়গুণাকর)।

উৎস

  • – সংস্কৃত তেন।

সমার্থক

  • – তেঁ, তেঁই, তেঁউ, তেঁএ৷

তেঁএ

তেঁএ

অব্যয়

  • – (প্রাচীন বাংলা) তদ্দ্বারা, তাই, সেইজন্য, তজ্জন্য (‘অনেকের পতি তেঁই পতি মোর বাম’: ভারত চন্দ্র রায়গুণাকর)।

উৎস

  • – সংস্কৃত তেন।

সমার্থক

  • – তেঁ, তেঁই, তেঁউ, তেঁএ৷

তেএঁটে

তেএঁটে

বিশেষণ

  1. – তিন আঁটিযুক্ত;
  2. – কুত্সিত, কুদর্শন;
  3. – বদমাশ, ফিচেল, ধূর্ত।

তেকাঁটা

তেকাঁটা

বিশেষ্য

  • – ত্রিশিরা গাছবিশেষ।

তেকাঠা

তেকাঠা

বিশেষ্য

  • – তিন খণ্ড কাঠে তৈরি তেকোনা পাত্রবিশেষ।

তেকাঠি

তেকাঠি

বিশেষ্য

  • – (তিন কাঠি বা তিনটি দণ্ড থাকে বলে) ফুটবল খেলার গোলপোস্ট।

উৎস

  • – বাংলা তে + কাঠি।

তেচোখো

তেচোখো

বিশেষণ

  • – তিন চক্ষুযুক্ত।