তৎপর

তৎপর

ক্রিয়া-বিশেষণ

  • তারপর, তদনন্তর।

বিশেষণ

  1. পটু, দক্ষ (কর্মতত্পর);
  2. যত্নবান;
  3. উদ্যমী; সচেষ্ট;
  4. সতর্ক।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + পর৷

তৎপরতা

তৎপরতা

বিশেষ্য

  • পটুতা; প্রযত্ন; সচেষ্টতা, উদ্যম, সতর্কতা।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + পর + তা৷

তৎপরায়ণ

তৎপরায়ণ

বিশেষণ

  • তাতে মনোযোগী বা অত্যন্ত আসক্ত।

বিশেষ্য

  • তৎপরায়ণতা।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + পরায়ণ + তা৷

তৎপুরুষ

তৎপুরুষ

বিশেষ্য

  1. পরমপুরুষ ভগবান;
  2. (ব্যাকরণ) সমাসবিশেষ-এই সমাসে পূর্বপদের বিভক্তি লোপ পায় এবং প্রায়শ পরপদের প্রাধান্য হয়। যেমন, গৃহ থেকে আগত = গৃহাগত, গাছে পাকা = গাছপাকা।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + পুরুষ৷

তৎসংক্রান্ত

তৎসংক্রান্ত

বিশেষণ

  • সেই সম্পর্কিত, সেই বিষয় সম্পর্কিত।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + সম + ক্রান্ত৷

তৎসদৃশ

তৎসদৃশ

বিশেষণ

  • সেইরকম, তদ্রূপ, তার তুল্য।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + সদৃশ৷

তৎসম

তৎসম

বিশেষ্য বিশেষণ

  1. তার সদৃশ, তার মতো;
  2. (ব্যাকরণ) সংস্কৃত থেকে গৃহীত এবং বাংলা ভাষায় অবিকৃতরূপে প্রচলিত (তত্সম শব্দ-যেমন বিদ্যা, আলোক, চন্দ্র)।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + সম৷

তৎস্থলাভিষিক্ত

তৎস্থলাভিষিক্ত

বিশেষণ

  • তার স্থানে বা পদে নিযুক্ত বা অধিষ্ঠিত; তার প্রতিনিধিস্বরূপ।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + স্থল + অভিষিক্ত৷

তৎস্বরূপ

তৎস্বরূপ

বিশেষণ

  • তত্সদৃশ, সেইরকম, তদ্রূপ, তার তুল্য।

উৎস

  • সংস্কৃত তৎ + সদৃশ৷

ৎ (খণ্ড-ত)

সংজ্ঞা

  • – ৎ (খণ্ড-ত), মৌলিক বর্ণ নয়, ত বর্ণে হসন্ত দিলে ৎ হয়৷

উচ্চারণ

  • – ৎ এর উচ্চারণ “ত্”-এর ন্যায়।

ব্যবহার

  1. – খণ্ড-ত সবসময় অন্ত্যধ্বনিদল হিসেবে ব্যবহৃত হয়। মূলত সংস্কৃত (তৎসম) শব্দে এর দেখা মেলে। এর ব্যবহার আকস্মিক ধ্বন্যাত্মক শব্দেও পাওয়া যায়। কিছু কিছু বিদেশী শব্দের উচ্চারণেও “ৎ”-এর ব্যবহার দেখা যায়, যেমন হযরৎ, শাহাদাৎ, নাৎসি ইত্যাদি। তবে দেশী শব্দে একই উচ্চারণের জন্য এর পরিবর্তে “ত”-এর ব্যবহারও লক্ষণীয়, যেমন নাৎনি = নাতনি, বা করাৎ = করাত ইত্যাদি।
  2. – ৎ-য়ের পরে স্বরবর্ণ বা কার যুক্ত হলে ত-য়ে পরিবর্তিত হয়৷ যেমন: জগৎ+এ=জগতে, জগৎ+ইক=জাগতিক; বিদ্যুৎ+এ=বিদ্যুতে, বিদ্যুৎ+ইক= বৈদ্যুতিক; ভবিষ্যৎ+এ=ভবিষ্যতে; আত্মসাৎ+এ=আত্মসাতে; সাক্ষাৎ+এ=সাক্ষাতে ইত্যাদি।
  3. – সন্ধিতে ৎ এর পরে ক, খ, ত, থ, প, ফ, স এলে ৎ বহাল থাকে, অন্য বর্ণ এলে ৎ দ-য়ে পরিবর্তত হয়৷ যেমন: হৃৎকমল, হৃৎকম্প, হৃৎপিণ্ড, হৃদযন্ত্র ইত্যাদি৷

উদাহরণ

  1. – ভবিষ্যৎ;
  2. – সত্যজিৎ;
  3. – হঠাৎ;
  4. – থপাৎ;
  5. – মড়াৎ;
  6. – নাৎসি;
  7. – জুজুৎসু৷

উৎস

  • – বাংলা আলিকালি, বাংলা বর্ণমালা৷