আলিকালি

আলিকালি

বিশেষ্য

  • বর্ণমালা অর্থাৎ অকারাদি স্বরবর্ণমালা এবং ককারাদি ব্যঞ্জন বর্ণমালা।

প্রয়োগ

  • “আ◦ বেণি সারি সুণে আ।”-চ◦ 17।3। (“আ◦ বর্ণা- ক্ষরাণাং মধ্যে সারাক্ষরমকারং।”-টীকা, বৌদ্ধ গান। বেণি = দুয়ের মিলন। সারি = সার। সুণে আ = শুনিয়া)

তুলনামূলক

  • য়ুরোপীয় ভাষায় alphabet
  • গ্রীক-প্রথম বর্ণ আল্ফা ও দ্বিতীয় বর্ণ বিটা-বেট্ >,
  • সেমিতীয় ভাষার ‘আলিফ্ বে’ (হিব্রু-‘আলিফ্’ ভেথ্ বা বেথ্ এবং আরবী ও ফারসীর ‘বে’ >)।

বুৎপত্তি

  • অ + আলি (শ্রেণী)-ক + আলি (শ্রেণী)। অতি প্রাচীন বাংলা।
  • আলি-কালি শব্দ যদিও সংস্কৃত এবং তদ্ভব ও তত্সম সকল ভারতীয় ভাষা-বাংলা, হিন্দী, অসমিয়া (অহমিয়া), উড়িয়া, গুজরাতী, মহারাষ্ট্রী, তেলুগু (তামিল নয়, তামিলের বর্ণমালা ভিন্নরূপ) ইত্যাদি ভাষার বর্ণমালা সম্বন্ধে প্রযুক্ত হতে পারে, তবু এটি বঙ্গদেশেই পূর্বে প্রচলিত ছিল; অধুনা শব্দটি অপ্রচলিত।