এযাবৎ 940 টি ভুক্তি প্রকাশিত হয়েছে।
১২০০

প্রকাশিত ভুক্তি 940 টি।

এ পাতায় আছে 12 টি।

অইস [সংস্কৃত ঈদৃশ; অতি প্রাচীন বাংলা আইস, “আইস ভাবে; আইস সংবোহেঁ কো পতি- আই” চর্যাপদ ২৯।১) আইসো। ঐছন দ্রষ্টব্য] বিশেষণ, ক্রিয়া-বিশেষণ ঈদৃশ; এতাদৃশ; এমন। ‘রাউতু ভণই কট ভুসুকু ভণই কট সঅলা অইস সহাব।‘ চর্যাপদ ১২০০। ‘অইস সহাব’ — চর্যাপদ ৪১।৫; দোহা ১০৭, ইত্যাদি।
অইসন [সংস্কৃত ঈদৃশ; অতি প্রাচীন বাংলা আইস, “আইস ভাবে; আইস সংবোহেঁ কো পতি- আই” চর্যাপদ ২৯।১) আইসো। ঐছন দ্রষ্টব্য] বিশেষণ, ক্রিয়া-বিশেষণ ঈদৃশ; এতাদৃশ। ‘অইস সহাব’ — চর্যাপদ ৪১।৫; দোহা ১০৭, ইত্যাদি
অইসা [প্রাকৃত] ক্রিয়া, আসা। ‘অইসসি জাসি ডোম্বী কাহরি নাবেঁ।‘ চর্যাপদ ১০, ১২০০।
অইসেঁ বানানভেদ অইসে, অইসো [সংস্কৃত ঈদৃশ; অতি প্রাচীন বাংলা আইস, “আইস ভাবে; আইস সংবোহেঁ কো পতি- আই” চর্যাপদ ২৯।১) আইসো। ঐছন দ্রষ্টব্য] বিশেষণ, ক্রিয়া-বিশেষণ ঈদৃশ; এতাদৃশ। “অইস সহাব” — চর্যাপদ ৪১।৫; দোহা ১০৭, ইত্যাদি
অইসে বানানভেদ অইসেঁ, অইসো [সংস্কৃত ঈদৃশ; অতি প্রাচীন বাংলা আইস, “আইস ভাবে; আইস সংবোহেঁ কো পতি- আই” চর্যাপদ ২৯।১) আইসো। ঐছন দ্রষ্টব্য] বিশেষণ, ক্রিয়া-বিশেষণ ঈদৃশ; এতাদৃশ। ‘অইস সহাব’ — চর্যাপদ ৪১।৫; দোহা ১০৭, ইত্যাদি
অইসো বানানভেদ অইসে, অইসেঁ [সংস্কৃত ঈদৃশ; অতি প্রাচীন বাংলা আইস, “আইস ভাবে; আইস সংবোহেঁ কো পতি- আই” চর্যাপদ ২৯।১) আইসো। ঐছন দ্রষ্টব্য] বিশেষণ, ক্রিয়া-বিশেষণ ঈদৃশ; এতাদৃশ। “অইস সহাব” — চর্যাপদ ৪১।৫; দোহা ১০৭, ইত্যাদি
অকট [পালি, অক্কট, তুলনামূলক – আকাট। বৌদ্ধযুগের বাংলা ভাষা ও সাহিত্য। ‘অকটেতি আশ্চর্য্যং।’ – (চর্য্যাচর্য্যবিনিশ্চয় পদের টীকা), ‘অক্কট ইত্যাশ্চর্য্যং’ (অদ্বয় বজ্র কৃত টীকা)] বিশেষণ অক্কট; আশ্চর্য; বিস্ময়কর। ‘অকট করুণা ডমরুলি বাজঅ।’ চর্যাপদ ৩১, ১২০০। ‘অক্কট পণ্ডিঅ,’ — বৌদ্ধ গান ও দোহা (সহস্র বর্ষ পূর্বের বাংলা), চর্য্যাচর্য্যবিনিশ্চয় ৩১।২। আশ্চর্য। ‘অকট হূঁ ভব ইঅণা।‘ চর্যাপদ ৩৯, ১২০০। অকাট (মূর্খ)। ‘অকট জোইআ রে মা কর হথা লোহ্লা।‘ চর্যাপদ ৪১, ১২০০।
অকাশ [সংস্কৃত আকাশ] বিশেষ্য আকাশ। ‘ফিটেলি অন্ধারী রে অকাশ ফুলিআ।‘ চর্যাপদ ৫০, ১২০০।
অকিলেস [সংস্কৃত অক্লেশ] বিশেষ্য ক্লেশহীনতা। ‘বিদ্যা করি দমকু অকিশেসেঁ।‘ চর্যাপদ ৯, ১২০০।
অকিলেসেঁ [সংস্কৃত অক্লেশ>] ক্রিয়াবিশেষণ অনায়াসে; সহজে; বিনা বাধায়। ‘বিদ্যা করি দমকু অকিলেসেঁ। চর্যাপদ ৯, ১২০০।
অক্কট [তুলনামূলক – আকাট। বৌদ্ধযুগের বাংলা ভাষা ও সাহিত্য। ‘অকটেতি আশ্চর্য্যং।’ (চর্য্যাচর্য্যবিনিশ্চয় পদের টীকা), ‘অক্কট ইত্যাশ্চর্য্যং’ (অদ্বয় বজ্র কৃত টীকা)] বিশেষণ অকট; আশ্চর্য। ‘অকট করুণা ডমরুলি বাজঅ,’ ‘অক্কট পণ্ডিঅ,’ বৌদ্ধ গান ও দোহা চর্য্যাচর্য্যবিনিশ্চয় ৩১।২।
অক্লেশে [বৌদ্ধ বাংলা প্রাকৃত অক্লেশে (চর্যাপদ ৯।৫, ১২০০)] ক্রিয়াবিশেষণ অনায়াসে; সহজে। ‘দাদনীর টাকা অক্লেশে ফিরিয়া দিতে পারে।’ বঙ্গদূত পত্রিকা, ১৮২৯।
Scroll Up