এযাবৎ 940 টি ভুক্তি প্রকাশিত হয়েছে।

প্রকাশিত ভুক্তি 940 টি।

এ পাতায় আছে 50 টি।

অকিঞ্চন [সংস্কৃত ন = অ-কিঞ্চন (কিছু) – যার কিছুই নাই – বহুব্রীহি সমাস] বিশেষণ নিঃস্ব; দরিদ্র; ‘ভাট অকিঞ্চন জন।‘ কৃষ্ণদাস কবিরাজ, ১৫৮০। সম্বলহীন; দীন; দীনহীন ব্যক্তি। ‘শুন অকিঞ্চণের গোহারি।‘ মুকুন্দরাম চক্রবর্তী, ১৬০০। [বাংলা বিশেষার্থে] দুঃখী। ‘শুন অকিঞ্চনের গোহারি।’ মুকুন্দরাম চক্রবর্তী, ১৬০০; ‘কৃপা, প্রভু, কর অকিঞ্চনে।’ মেঘনাদবধ কাব্য, মাইকেল মধুসূধন দত্ত সামান্য; ইতর। ‘আমাদিগের অনুচিকীর্ষাবৃত্তি কি শুদ্ধ তাঁহাদিগের অকিঞ্চন গুণের বা দোষের অনুকরণ করিতে শিক্ষা দিয়াই চরিতার্থ থাকিবে?’ রচনাবলী অধম। ‘জনগণের মধ্যে আমি অতি হেয় ও অকিঞ্চন।‘ প্যারীচাঁদ মিত্র, ১৮৫৮। নিঃস্ব। ‘ছিনু আমি অকিঞ্চন।‘ সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত, ১৯১০। বিশেষ্য অভাব। ‘আমার ধনের কিছু অধিক অকিঞ্চন নাই।‘ রামরাম বসু, ১৮০১। অতি সাধারণ ব্যক্তি। ‘অকিঞ্চনের বোধে এই হয় যে … অত্যন্ত হিতের সম্ভাবনা।‘ সমাচার দর্পন, ১৮৩১। ন্যূনতা। ‘এতদর্থ এই অকিঞ্চনের বোধে এই দুই নিয়মের অধিক আবশ্যক।‘ সমাচার দর্পন, ১৮৩৩। ভক্ত। ‘কর দুঃখমোচন অকিঞ্চনের আকিঞ্চন।‘ দাশরথি রায়, ১৮৪০; ‘অকিঞ্চন মন দৃঢ় ভাবে জপ নারায়ণ।’ বাংলা গান মূঢ়; মত্ত; নগণ্যজন। ‘কৃপা প্রভু কর অকিঞ্চনে।‘ মাইকেল মধুসূদন দত্ত, ১৮৬১।
অকিঞ্চনতা (-ন-) [সংস্কৃত অকিঞ্চন + তা (ভাববাচ্যে)] ১ বিশেষ্য দীনতা; দরিদ্রতা। বিদ্যা, ১৮৬৪; ‘ও অনায়াসে অকিঞ্চনতার স্যাকরা গাড়িতে ওর চন্দ্রমাস্টারের জুড়ি হতে পারত।‘ রবীন্দ্র, ১৯১৫। কিছুমাত্র সঙ্গতি না থাকা; নিঃস্বতা; দারিদ্র্য; দৈন্য; দারিদ্র্যের লক্ষণ। ‘যৎসামান্য ভাব ও ছিন্নবস্ত্র অকিঞ্চনতা যেন কেবল একটা মস্ত বেয়াদবি।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৮৮৪। তুচ্ছতা। ‘বিষয়হীনের অকিঞ্চনতা তাঁদের কাছে ফস করে ধরা পড়ে গেল।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯২৯।
অকিঞ্চনত্ব (-ন-) [সংস্কৃত] বিশেষ্য অকিঞ্চনের ভাব; দীনতা।
অকিঞ্চিৎ [সংস্কৃত ন = অ-কিঞ্চিৎ (কিছু)] বিশেষণ কিছুই নয়; যাতে কিছু নাই; যৎসামান্য; নগণ্য।
অকিঞ্চিৎকতা [সংস্কৃত ন = অ + কিঞ্চিৎকতা] বিশেষ্য সামান্যতা। ‘বুদ্ধির অতি ক্ষুদ্রতা ও অকিঞ্চিৎকরতা উপলব্ধি করিয়া … স্তম্ভিত। অক্ষয়কুমার দত্ত, ১৮৫৪।
অকিঞ্চিৎকত্ব [সংস্কৃত] বিশেষ্য অভাব; দীনতা। ‘ভোজ্যসামগ্রীর অকিঞ্চিৎকরত্ব সম্বন্ধে … বলিতে থাকেন।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৮৯১।
অকিঞ্চিৎকর [সংস্কৃত ন = অ-কিঞ্চিৎ-কর (যে করে) – উপপদ সমাস] বিশেষণ যাতে কিছুই হয় না; নিষ্ফল। ‘ভক্তি বিনা জপ তপ অকিঞ্চিৎকর।‘ বৃন্দাবন দাস, ১৫৮০। অমূলক। ‘তাবদ্ভারতবর্ষীয় লোকের স্নেহপাত্র যে গবর্ণমেণ্ট হইবেন এই অনুভব নিতান্তই অকিঞ্চিৎকর।‘ সমাচার দর্পন, ১৮৩৩। তুচ্ছ। ‘ধৈর্য্য অবলম্বন করুন, এবং অন্তঃকরণ হইতে অকিঞ্চিৎকর শোককে নিষ্কাশিত করিয়া, রাজকার্য্যে মনোনিবেশ করুন।’ ‘সংসার অতি অকিঞ্চিৎকর।’ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, ১৮৪৭; ‘গদ্যময় কাব্যকে আলঙ্কারিকেরা কথা ও আখ্যায়িকা এই দুইভাগে বিভক্ত করিয়া থাকেন। কিন্তু এই দু’য়ের বৈলক্ষণ্য এমন সামান্য যে ইহাদিগের ভাগদ্বয়ে বিভাগ অনাবশ্যক ও অকিঞ্চিত্কর।’ কাব্যনির্ণয় ভিত্তিহীন। ‘একান্ত শোচনীয় অকিঞ্চিকর দৈবের প্রশংসা করিতেছেন?’ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৮৭৭। খেলো। ‘সংস্কৃত কাব্য বাংলা অনুবাদে অত্যন্ত অকিঞ্চিৎকর শুনিতে হয়।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৮৯৫। সামান্য; অল্প; অতিসামান্য। ‘… অকিঞ্চিৎকর হলেও যার আছে বিশেষত্ব।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯৩৫।
অকির্তি, অকির্ত্তি [সংস্কৃত অকীর্তি] বিশেষ্য কুখ্যাতি। ‘অকির্ত্তির ভএ পুত্র এড়িবারে চাহে।‘ কবীন্দ্র পরমেশ্বর, ১৬৮৯।
অকিলেস [সংস্কৃত অক্লেশ] বিশেষ্য ক্লেশহীনতা। ‘বিদ্যা করি দমকু অকিশেসেঁ।‘ চর্যাপদ ৯, ১২০০।
অকিলেসেঁ [সংস্কৃত অক্লেশ>] ক্রিয়াবিশেষণ অনায়াসে; সহজে; বিনা বাধায়। ‘বিদ্যা করি দমকু অকিলেসেঁ। চর্যাপদ ৯, ১২০০।
অকিল্বিষ [সংস্কৃত] বিশেষ্যনিষ্পাপ। নির্দোষ।
অকীক বিশেষ্য ভারতীয় মূল্যবান প্রস্তর বিশেষ; কর্ণেলিয়ান [Cornelian, agate, anyx ইত্যাদি ইহার অন্তর্গত। ইহা জলভরা মেঘের মত শ্যামল পাণ্ডুবর্ণ, অল্প শ্বেতসহ অল্প অল্প নীলাভ, তৎসহ নানারকম জড়িত ঝাড় লতা কাটা। ছুরির বাঁট, বোতাম ইত্যাদি ইহাতে নির্মিত হয়]।
অকীকপাথর বিশেষ্য ভারতীয় মূল্যবান প্রস্তর বিশেষ; কর্ণেলিয়ান [Cornelian, agate, anyx ইত্যাদি ইহার অন্তর্গত। ইহা জলভরা মেঘের মত শ্যামল পাণ্ডুবর্ণ, অল্প শ্বেতসহ অল্প অল্প নীলাভ, তৎসহ নানারকম জড়িত ঝাড় লতা কাটা। ছুরির বাঁট, বোতাম ইত্যাদি ইহাতে নির্মিত হয়]।
অকীর্তি, অকীর্ত্তি [সংস্কৃত ন = অ-(অপকৃষ্ট) কীর্তি (যশঃ)] বিশেষ্য অখ্যাতি; অযশঃ; নিন্দা; দুর্নাম; অপকীর্তি; কুখ্যাতি। ‘রণক্ষেত্র হইতে পলায়ন করিলে, ইহলোকে অকীর্তি ও পরলোকে নরকপাত হয়। ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, ১৮৪৭; ‘স্বধর্ম্ম ও কীর্ত্তি ত্যাগ করায় পাপ প্রাপ্ত হইবে, পরন্তু লোকে তোমার অক্ষয় অকীর্ত্তি ঘোষণা করিবে; মানী ব্যক্তির অকীর্ত্তি মরণ অপেক্ষাও অধিক হয়।’ গীতা (আর্য্যমিশন)]
অকীর্তিকর, অকীর্ত্তিকর বিশেষণ অযশস্বর; অখ্যাতিকর; নিন্দাজনক; নিন্দাকর। ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, ১৮৬৪।
অকীর্তিত, অকীৰ্ত্তিত [সংস্কৃত] বিশেষণ কীর্তি বলে বিবেচিত হয় না এমন। ‘অকথিত, অকীৰ্ত্তিতকর্ম মোদের যেমতি হোক।‘ সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত, ১৯০৮। অপ্রশংসিত। ‘অকীর্তিত সেবার কাজে অঙ্গ হবে ক্ষীণ।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯৩৮।
অকীর্তিমান, অকীর্ত্তিমান [সংস্কৃত] বিশেষণ অখ্যাত; অপ্রসিদ্ধ; অযশস্বী; নিন্দিত; অজ্ঞাত কুলশীল। স্ত্রীলিঙ্গ অকীর্তিমতী।
অকু [আরবী – ওয়াকূ, বকূ] বিশেষ্য ঘটনা। কুস্থান। [আদালত] মারপিট; চুরি ইত্যাদি অপরাধযুক্ত ঘটনা। ঘটনা স্থান, scene of occurrence.
অকুআৎ [অকু বহুবচন] বিশেষ্য দুষ্ক্রিয়া সমূহ; অপরাধ সমূহ misdeeds. ঘটনা (খুন, মারপিট, চুরি, ডাকাতি ইত্যাদি) occurrence.
অকুটিল [সংস্কৃত ন = অ-কুটিল] বিশেষণ অবক্র; সরল; কুটিলতা শূন্য; খলতাহীন। বিশেষ্য অকুটিলতা।
অকুণ্ঠ [সংস্কৃত ন = অ-কুণ্ঠ্ (আলস্য করা) + অ (কর্তৃবাচ্যে)] বিশেষণ কুণ্ঠাহীন। ‘যে দস্যুরা বিজ্ঞানের মহৎ ব্রতকে অকুণ্ঠ বর্বরতায় পর্যবসিত করিতেছে …।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯৩৯। অসঙ্কুচিত; যা নমিত হয় না। ‘পরশুরাম অকুণ্ঠ ধার কুঠার দ্বারা পৃথিবীকে ২১ বার নিক্ষত্রিয় করিয়াছিলেন।’ প্রতিভাযুক্ত। অক্ষুব্ধ। উদার। ‘ইহাকে অকুণ্ঠ প্রশংসা করতে হয়।‘ বেগম, ১৯৫২।
অকুণ্ঠচিত্ত [সংস্কৃত] বিশেষ্য কুণ্ঠাহীন মন। ‘জনসাধারণ অকুণ্ঠচিত্তে পরিপূর্ণ বিদ্রোহ করতে পারে।’ কাজী নজরুল ইসলাম, ১৯২৪।
অকুণ্ঠচিত্তে [সংস্কৃত] ক্রিয়াবিশেষণ নির্দ্বিধায়। ‘জনসাধারণ অকুণ্ঠচিত্তে পরিপূর্ণ বিদ্রোহ করতে পারে। কাজী নজরুল ইসলাম,’ ১৯২৪; ‘আমিও একে অকুণ্ঠচিত্তে মেনে নিতে পারি।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯৪১।
অকুণ্ঠা [সংস্কৃত] বিশেষ্য একনিষ্ঠতা। ‘প্রাণ গেলেও যত্নে রবে অকুণ্ঠা।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯৩৮।
অকুণ্ঠিত [সংস্কৃত ন = অ + কুণ্ঠ্ (আলস্যে) + ত (কর্তবাচ্যে)] বিশেষণ কুণ্ঠাহীন; দ্বিধাহীন। ‘যে পুরুষ অসংশয়ে অকুণ্ঠিতভাবে নিজেকে প্রচার করিতে পারে।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯০১; ‘কুণ্ঠিত চিত্ত।‘ নবনূর পত্রিকা, ১৯০৩। অসঙ্কুচিত; মুক্ত; উদার। অক্ষুব্ধ; স্ত্রীলিঙ্গ অকুণ্ঠিতা। ‘উষার উদয় সম অনব গুণ্ঠিতা তুমি অকুণ্ঠিতা।’ রবীনাথ ঠাকুর
অকুণ্ঠিতচিত্ত বিশেষণ মুক্তপ্রাণ; উদারমতি। ক্রিয়াবিশেষণ অকুণ্ঠিতচিত্তে, অকুণ্ঠিতপ্রাণে, অকুণ্ঠিতমনে, অকুণ্ঠিতহৃদয়ে; সংশয়হীন মন। ‘নীরবে অকুণ্ঠিতচিত্তে মানিয়া লইল।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯০৯।
অকুণ্ঠিতভাবে [সংস্কৃত] ক্রিয়াবিশেষণ দ্বিধাহীনভাবে; জড়তাহীনভাবে। ‘যে পুরুষ অসংশয়ে অকুণ্ঠিতভাবে নিজেকে প্রচার করিতে পারে।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯০১।
অকুণ্ঠিতা [সংস্কৃত] বিশেষণ স্ত্রীলিঙ্গ কুণ্ঠাহীন। ‘উষার উদয়-সম অবগুণ্ঠিত তুমি অকুণ্ঠিতা।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৮৯৫।
অকুতোভয় [সংস্কৃত ন = অ-কুতঃ (কিম্ + তঃ = হইতে) কোথাও হতে – ভয় যার নাই।] বিশেষণ যে কাকেও বা কোনও কারণে ভয় করে না; নিঃশঙ্ক; নির্ভীক। স্ত্রীলিঙ্গ অকুতোভয়া।
অকুতোভয় [সংস্কৃত] বিশেষ্য নির্ভীকতা। ‘অকুতোভয়ে বিচার ধর্ম নিয়মাচরণে সকল বিবাদবিষয় তদাদি তদন্ত।‘ সমাচার দর্পণ, ১৮২২; ‘আমি অকুতোভয়ে কহিতেছি।‘ সমাচার দর্পণ, ১৮৩৮।
অকুতোভয়তা [সংস্কৃত ন = অ + কুতঃ + ভয়তা] বিশেষ্য অসমসাহসিকতা; একান্ত ভয়শূন্যতা। একান্ত ভয়শূন্যতা। ‘তাঁহার দয়া, সৌজন্য, অকুতোভয়তা দর্শনে, ব্যক্তিমাত্রেই মোহিত।‘ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, ১৮৬৩। ক্রিয়াবিশেষণ অকুতোভয়ে।
অকুতোভয়ে [সংস্কৃত] ক্রিয়াবিশেষণ নির্ভীকভাবে। ‘অকুতোভয়ে বিচার ধর্ম্ম নিয়মা-চরণে সকল বিবাদবিষয় তদাদি তদন্ত।‘ সমাচার দর্পণ, ১৮২২।
অকুপ্য [সংস্কৃত] বিশেষ্য স্বর্ণ; রজত।
অকুব, অকুফ [আরবী-বকূফ্ (বুদ্ধি) তুলনামূলক—বৌদ্ধ বাংলা—অকইব = পণ্ডিত — শূন্য পুরাণ] বিশেষ্য জ্ঞান; বুদ্ধি; আক্কেল; কাণ্ডজ্ঞান। ‘তোমার বেটার নহে আক্কেল অকুফ।‘ ফকির গরীবুল্লাহ, ১৭৬৫। বাংলায় প্রায় আক্কেল শব্দসহ যুক্ত হয়। ‘আক্কেল অকুব, অকুফ’।
অকুব, অকুফ [আরবী-বকূফ্ (বুদ্ধি) তুলনামূলক—বৌদ্ধ বাংলা—অকইব = পণ্ডিত — শূন্য পুরাণ] বিশেষ্য জ্ঞান; বুদ্ধি; আক্কেল। বাংলায় প্রায় আক্কেল শব্দসহ যুক্ত হয়। ‘আক্কেল অকুব, অকুফ’।
অকুম [আরবী হুকুম] বিশেষ্য আদেশ। মানোএল, ১৭৪৩।
অকুমার [সংস্কৃত ন = অ (অতীত) কুমার অবস্থা যার] বিশেষ্য পঞ্চবর্ষাধিক বয়স্ক বালক; যুবক। ‘আমার বংশের ভাগ্য বিশ্বরূপ পুত্ত্র যোগ্য অকুমার করিল সন্ন্যাস।‘ জয়ানন্দ, ১৬৫০। স্ত্রীলিঙ্গ অকুমারী; দশ বৎসরের বালিকা।
অকুমারধর্ম [সংস্কৃত] বিশেষ্য ব্রহ্মচর্য। ‘বৃথা অকুমার ধর্মে শরীর শোষয়।‘ বৃন্দাবন দাস, ১৫৮০।
অকুমারী [সংস্কৃত] বিশেষণ, স্ত্রীলিঙ্গ অবিবাহিতা। ‘অকুমারীকালে জন্ম হইল নন্দনে।‘ কাশীরাম দাস, ১৬৫০। প্রাপ্তবয়স্ক। ‘তুমি অকুমারী সতী অবশ্য চাহি তোমার পতি।‘ বিজয় গুপ্ত, ১৬৫০। তরুণ বয়স্ক। ‘অকুমারী রামা আহ্মি বান্ধববর্জিত।‘ কবীন্দ্র পরমেশ্বর, ১৬৮৯। নিস্পাপ কুমারী। ‘সে অতি উতম নির্মল সম্পূর্ণো দয়া বক্রপাতে অকুমারীর উদরে পরমেশর ওমত।‘ দোম আন্তোনিয়ো দো রোজারিয়ো, ১৭৪৩।
অকুল [স অকূল; ব্রজবুলি, প্রাচীন বৈষ্ণব সাহিত্য] বিশেষ্য, বিপদ। ‘সখি হে অব অকুল শত নাহি মানি।’ গোবিন্দ দাস, ১৬০০।
অকুল [সংস্কৃত অ (অপ্রশস্থ) + কুল (বংশ, ঘর)] বিশেষণ অকুলীন; অঘর; যে বংশের সহিত করণ-কারণ চলিত নাই। ‘কেহো কুল অকুল কেহো বড় বেহাল।‘ কৃত্তিবাস ওঝা, ১৬৫০।
অকুলন [সংস্কৃত ন = অ-কুল (রাশি করা) + অন] বিশেষ্য অকুলান; অনাটন; অভাব। কম পড়ন; অপ্রাচুর্য্য; অপ্রতুলতা।
অকুলসমুদ্র [সংস্কৃত ন = অ + কূল + সমুদ্র] বিশেষ্য মহাসঙ্কট। ‘বদ্ধহস্তপদ হইয়া একেবারে অকুলসমুদ্রে নিক্ষিপ্ত হইলাম।‘ সমাচার দর্পণ, ১৮৩৩।
অকুলান [সংস্কৃত ন = অ-কুল (রাশি করা) + অন] বিশেষ্য অকুলন; অনাটন; অভাব; টানাটানি। ‘যে তিন হাজার টাকার অকুলান হইয়াছে ইহা দিতে অস্বীকৃত হন।‘ সমাচার দর্পণ, ১৮৩২। কম পড়ন; অপ্রাচুর্য্য; অপ্রতুলতা।
অকুলিষ্ট [ইংরেজি oculist] বিশেষ্য চক্ষুবিজ্ঞানী। ‘অকুলিষ্ট — বিলেত থেকে পাশ করে এসেছেন।‘ জীবনানন্দ দাশ, ১৯৩২।
অকুলীন [সংস্কৃত ন = অ-কুলীন] বিশেষ্য কুলীন বংশে জাত নয় এমন ব্যক্তি। ‘অকুলীনে দিলে সুতা সভামাঝে হেটমাথা।‘ মুকুন্দরাম চক্রবর্তী, ১৬০০। বিশেষণ কুলমর্য্যাদাশূন্য; নীচকুলোদ্ভব। অখ্যাত। ‘ভিড়ের মধ্যে একটা ছোটো রন্দ্র দিয়ে রাজার চোখে পড়ল এক অকুলীন আমেরিকানী।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৯৩৯। বল্লাল সেন কৃত কুলবন্ধন বহির্ভূত।
অকুলোন [সংস্কৃত অকুলন] বিশেষ্য অভাব। ‘পাতে যদি কিছু হত অকুলোন।‘ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, ১৮৯৯।
অংকুশ [সংস্কৃত অঙ্কুশ] বিশেষ্য হাতি চালানোর লৌহদণ্ড। ‘অংকুশ হস্তে প্যারীজান হস্তীর ঘাড়ের উপর বসিয়া …।‘ মীর মশাররফ হোসেন, ১৮৯০।
অংকুশ তাড়না [সংস্কৃত অঙ্কুশ + তাড়না] বিশেষ্য অঙ্কুশ দিয়ে তাড়না। ‘মুসলিম বিদ্বেষের অংকুশ তাড়না দেখতে পাওয়া যায়।‘ মাহেনও পত্রিকা, ১৯৪৯।
অকুশল [সংস্কৃত ন = অ-কুশল (মঙ্গল)] বিশেষ্য বিপদ। ‘শুনি কহে জটিলা, ঘটিল কি অকুশল’; ‘কিয়ে অকুশল কহ মোয়।’ বিদ্যাপতি, ১৪৬০। অমঙ্গল; অশুভ। ‘আব্বাসে স্বপন শুনি অকুশল হেন জানি।‘ সৈয়দ সুলতান, ১৭০০। স্ত্রীলিঙ্গ অকুশলা।
অকুশলী বিশেষণ অকল্যাণযুক্ত; অমঙ্গলময়; পীড়াগ্রস্ত; অসুখী।
Scroll Up