অগস্তি

ভুক্তি অগস্তি
মূলশব্দ
অগস্তি [সংস্কৃত অগ (পর্বত)- স্তৈ (স্তম্ভিত করা) + অ (কর্তৃবাচ্য) যিনি সূর্যাদির গতি রোধকারী বিন্ধ্য পর্বতকে স্তম্ভিত করেছিলেন; দ্বিতীয়া তৎপুরুষ সমাস] বিশেষ্য অগস্ত্য; বেদ ও পুরাণে উল্লিখিত স্বনামখ্যাত মুনি; উর্বশীর উদ্দেশে মিত্রাবরুণনিষিক্ত তেজ হতে কুম্ভমধ্যে সম্ভূত খর্বাকৃতি মহর্ষি; পত্নী লোপামুদ্রা। (রামামায়ণ)। বিন্ধ্যপর্বত বর্ধিত হয়ে সূর্যের গতিরোধ করার উপক্রম করলে, তিনি বিন্ধের নিকট উপস্থিত হন, বিন্ধ্য স্বীয় গুরুকে নত হয়ে প্রণাম করলে, মুনি বলেন – ‘যাবৎ আমি প্রত্যাবৃত্ত না হই তাবৎ তুমি এই অবস্থায় থাক।’ এই বলে তিনি ভাদ্রমাসের প্রথম দিন দক্ষিণাপথে প্রস্থান করেন, আর ফিরেন নি। কেউ কেউ এই ঘটনাকে আর্যকর্তৃক বিন্ধ্য অতিক্রম করে দক্ষিণাপথে উপনিবেশ স্থাপনের রূপক মনে করেন। দক্ষিণাপথের লোকেও তাঁকে দ্রাবিড়জাতির প্রথম জ্ঞানোপদেষ্টা বলে। ডা. কলডোয়েল অগস্ত্যমুনির প্রাদুর্ভাবকাল খ্রীষ্ট পূর্ব ষষ্ঠ বা সপ্তম শতক অনুমান করেন। অগস্ত্য, খৃষ্টীয় ষষ্ঠ শতাব্দীর জনৈক তামিল গ্রন্থকার। ভারতকোষ, রাজকৃষ্ণ ও শরচ্চন্দ্র শাস্ত্রী প্রণীত অভিধান [জ্যোতিষ্শাস্ত্র] অগস্ত্য নক্ষত্র (যার উদয়ে শরৎ ঋতু সুচিত হয়); the canopus. শেষ। অনিঃশেষ।
সম্পর্কিত
মতামত জানান